1. chalanbeel.probaho@gmail.com : News :
  2. khokanhaque.du@gmail.com : khokan :
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৩:২৭ অপরাহ্ন

কোরবানি ঈদকে সামনে রেখে দাম বাড়ছে দেশী পেঁয়াজের

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৩০ মে, ২০২৪
  • ১৭ বার পঠিত

দেশের বাজারগুলোয় মসলাপণ্যের দাম ঊর্ধ্বমুখী হয়ে উঠেছে। নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে পেঁয়াজের বাজার উন্মুক্ত করলেও রফতানি মূল্য ও অতিরিক্ত শুল্কারোপে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি করছেন না ব্যবসায়ীরা।

এ কারণে বাজারগুলোয় দেশী পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। অন্যদিকে ভারত থেকে আমদানি কমে যাওয়ার পাশাপাশি ঘূর্ণিঝড়ের কারণে বন্দর থেকে আদা ও রসুনের খালাস কার্যক্রম বন্ধ। ফলে এসব মসলাপণ্যের বাজারও অস্থিতিশীল হয়ে উঠেছে।

দেশে ভোগ্যপণ্যের সবচেয়ে বড় পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এক সপ্তাহের ব্যবধানে দেশী জাতের সব ধরনের পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৭-৯ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। ছোট সাইজের দেশী পেঁয়াজ কেজিতে ৬৭-৬৮ আর বড় সাইজের ৭২-৭৩ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

অন্যদিকে বর্তমানে পাইকারি বাজারে প্রতি কেজি ভারতীয় পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬৭-৬৮ টাকায়। ভারতীয় পেঁয়াজের দাম দেশী পেঁয়াজের চেয়ে কম হলেও বিক্রি কম হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। এ কারণে দেশের বিভিন্ন স্থলবন্দর থেকে ব্যবসায়ীরা ভারতীয় পেঁয়াজ সরবরাহ করছেন না।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, ভারতের পেঁয়াজ আমদানির মূল্য দেশী পেঁয়াজের চেয়ে বেশি। একসময় চট্টগ্রাম অঞ্চল এবং হোটেল, রেস্তোরাঁ ও বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে ভারতীয় পেঁয়াজের কদর ছিল। কিন্তু কয়েক বছর ধরে দেশে হাইব্রিড জাতের বড় ও মানসম্মত পেঁয়াজ উৎপাদন বেড়ে যাওয়ায় দেশী পেঁয়াজের কদর বেড়েছে। রফতানি উন্মুক্ত করে দেয়ার পরও ভারতের পেঁয়াজের পরিবর্তে দেশী পেঁয়াজ কিনছেন ক্রেতারা।

এদিকে কোরবানি ঈদের আগে দেশে পর্যাপ্ত চাহিদা সত্ত্বেও সরবরাহ সংকটে আদা-রসুনের দাম বেড়েছে। দুই সপ্তাহের ব্যবধানে আমদানীকৃত আদা-রসুনের দাম বেড়েছে কেজিতে ১৫-২০ টাকা। এছাড়া ঘূর্ণিঝড়ের কারণে বন্দর থেকে আমদানি পণ্য খালাস কার্যক্রম বন্ধ। ফলে শুধু দুই-তিনদিনের ব্যবধানে আদা ও রসুনের দাম কেজিতে অন্তত ১০ টাকা বেড়ে গেছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত