1. chalanbeel.probaho@gmail.com : News :
  2. khokanhaque.du@gmail.com : khokan :
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৫:২২ অপরাহ্ন

ফিচার
নাটোর অফিসার্স ফোরামের ঈদ পুনর্মিলনী

স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২৪
  • ২৪৩ বার পঠিত

ঈদ শেষ হয়েছে ক’দিন আগেই। তার রেশ এখনো কাটেনি। এরই মধ্যে গত রবিবার (২১ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ধানমন্ডির পানশী রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত হলো নব গঠিত নাটোর অফিসার্স ফোরামের ঈদ পুনর্মিলনী । অনুষ্ঠানে ঢাকায় কর্মরত নাটোরের বিভিন্ন পর্যায়ের প্রায় অর্ধ-শতাধিক কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। নবীন ও প্রবীণের একটা মিলনমেলা, একটা মেলবন্ধন অনুষ্ঠিত হলো ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে । আগত সবাই উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করলেন এ ধরনের একটি আয়োজন করার জন্য। বিশেষ করে নাটোর অফিসার্স  ফোরামের সমন্বয়ক, এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর মহাপরিচালক (গ্রেড-১) সাইদুর রহমানের প্রতি সকলে কৃতজ্ঞতা জানালেন এই উদ্যোগ নেয়ার জন্য। অনেকে অভিমত ব্যক্ত করে বললেন অনেক আগেই এ ধরনের উদ্যোগ নেয়া উচিত ছিল।

সন্ধ্যা ততক্ষণে গড়িয়ে গেছে । ধানমন্ডির পানশী রেষ্টুরেন্টে নাটোর অফিসার্স ফোরামের সদস্যরা কেউ একা আবার কেউ সস্ত্রীক উপস্থিত হচ্ছেন । ভীড় ক্রমান্বয়ে বাড়ছে। এরপর একে একে অনুষ্ঠানস্থলে হাজির হলেন সিনিয়র সচিব জাকিয়া সুলতানা এবং তার স্বামী পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক  আতিকুল ইসলাম , ১৯৭৩ ব্যাচের সাবেক অতিরিক্ত সচিব সাখাওয়াত হোসেন, অতিরিক্ত সচিব ( অব:) বজলুর রহমান, পুলিশের অতিরিক্ত আইজি রুহুল আমিন, যুগ্মসচিব শওকত আলী, জেলা জজ মাহবুবর রহমান, জেলা জজ সালাউদ্দিন আহমেদ, মেজর জেনারেল (অব:) মাহবুবুর রহমান, ব্রিগেডিয়ার ( অব:) মোজাম্মেল হোসেন, কর্নেল ইয়াসির,  ডিআইজি  এজেডএম নাফিউল ইসলাম, এডিশনাল ডিআইজি আলমগীর কবির পরাগসহ  সিনিয়র কর্মকর্তারা। প্রশাসন, বিচার, পুলিশ, স্বাস্থ্য, কর,  পোস্টালসহ বিভিন্ন ক্যাডার এবং সেনাবাহিনীর উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

দীর্ঘদিন পরে একে অপরের সাথে দেখা সাক্ষাত হওয়ায় আনন্দের আতিশায্যে পরস্পর পরস্পরকে জড়িয়ে ধরেন । কুশলাদি বিনিময়ের পর একান্ত আলাপচারিতায় মাতেন সবাই । অনেকের সাথে নতুন করে পরিচিত হলেন এখানে এসে। সবাই এসেছেন প্রাণের টানে। সবাই নাটোরের মাটির সন্তান । অনেক জুনিয়র অফিসাররা চিনলেন তাদের সিনিয়র স্যারদের। অনেকে পরিচয় দিতে গিয়ে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত অরে বললেন, অনেকের নাম শুনেছি কিন্তু কখনো দেখা সাক্ষাত হয়নি। আজ এখানে এসে দেখা হলো। অনেক ভালো লাগছে এখানে এসে। এরকমভাবে অনেকে অনেক রকম অভিমত ব্যক্ত করলেন।

নাটোর অফিসার্স ফোরামের সমন্বয়ক, এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর মহাপরিচালক (গ্রেড-১) সাইদুর রহমান তার অভিমত ব্যক্ত করে বলেন, অনেকদিন থেকেই এ রকম একটি আয়োজনের চিন্তা ভাবনা করছিলাম। আমাদের পরস্পর পরস্পরের সাথে পরিচয় না থাকায় অনেক সময় একই অফিসে চাকরি করা সত্ত্বেও একে অপরকে চেনা যায় না। নিজেদের মধ্য জানাশোনা থাকলে ঐক্যবদ্ধভাবে নিজেদের, সমাজ ও মানুষের কল্যাণে কাজ সুযোগ বৃদ্ধি পায় । আগামীতে এই ফোরামের মাধ্যমে স্বাস্থ্য, শিক্ষা, সমাজকল্যাণ ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড বিস্তৃত পরিসরে করা সম্ভব হবে।

অনুষ্ঠান শেষে মজাদার বাংলা খাবার পরিবেশন করা হয়। পাশাপাশি চলে ফটোসেশন। সব মিলে একটা স্মরণীয়  সন্ধ্যা  উপভোগ করল সবাই ।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত